আচরণবিধি

শিক্ষার্থীদের জন্য সাধারণ নির্দেশাবলীঃ

 

গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকাঃ

১. স্কুলের ইউনিফর্ম পরিধান করে ৭:৩০ ঘটিকার মধ্যে শিক্ষার্থীকে নিয়মিত হাজির হতে হবে। অন্যথায় কলেজ গেট বন্ধ হলে স্কুল ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না।

২. স্কুল ডায়েরীর Identification পাতা পূরণ করা বাধ্যতামূলক। অভিভাবকের স্বাক্ষর ঘরে বাবা এবং মা দুজনেরই স্বাক্ষর থাকতে হবে। বাবা/মায়ের ও বাসার টেলিফোন নম্বর শ্রেণী শিক্ষকের নিকট অবশ্যই জমা দিতে হবে।

৩. শ্রেণীকক্ষ অবশ্যই পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ও সু-সজ্জিত রাখা শিক্ষার্থীদের দায়িত্ব ও কর্তব্য।

৪. স্কুল চলাকালীন সময়ে কোন শিক্ষার্থী শ্রেণীকক্ষের বাইরে যেতে পারবে না।

৫. স্কুল পালানো অপরাধ। কোন শিক্ষার্থী স্কুল পালালে তাকে কলেজ থেকে বহিষ্কার করা হবে। স্কুল চলাকালীন সময়ে উপাধ্যক্ষের বিনা অনুমতিতে কেউ স্কুল ত্যাগ করতে পারবে না।

৬. পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করলে বা অসদুপায় অবলম্বনের উদ্দেশ্যে কোন অবৈধ কাগজ সঙ্গে রাখলে, স্কুলের নিয়ম কানুনের পরিপন্থী কোন কাজ করলে তাকে স্কুল থেকে বহিষ্কার করা যাবে।

৭. প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে স্কুলের শ্রেণী পরীক্ষাসহ সকল পরীক্ষায় নিয়মিত অংশগ্রহণ করতে হবে।

৮. বিনা অনুমতিতে একদিন অনুপস্থিত থাকলে পরের দিন অভিভাবকের স্বাক্ষরযুক্ত দরখাস্ত শ্রেণী শিক্ষকের নিকট জমা দিতে হবে।

৯. কোন শিক্ষার্থী পাঠ সংক্রান্ত উপকরণ ছাড়া অন্যকিছু বহন করলে, তার বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং অভিযোগের মাত্রা হিসাবে বহিষ্কার করা হবে।

১০. কোন শিক্ষার্থী অসুস্থতার কারণে ৩ দিন স্কুলে না আসতে পারলে একটি দরখাস্ত শ্রেণী শিক্ষকের কাছে জমা দেবেন এবং সুস্থ হলে ডাক্তারী প্রেসক্রিপশনসহ অভিভাবক তাকে স্কুলে নিয়ে আসবেন।

১১. প্রতিটি শিক্ষার্থীর টিফিন আনা বাধ্যতামূলক। টিফিন পিরিয়ডে নিজ নিজ শ্রেণীতে বসে নিয়মিত টিফিন খাবে।

১২. ব্যবহারিক ক্লাসে কোন যন্ত্রপাতি হারালে বা ক্ষতি সাধন করলে তাকে ঐ জিনিসের ভর্তুকিসহ জরিমানা দিতে হবে।

১৩. স্কুল আরম্ভ ও ছুটির সময় সুশৃঙ্খলভাবে নিঃশব্দে স্কুলে প্রবেশ করতে ও স্কুল ক্যাম্পাস ত্যাগ করতে হবে। স্কুল ছুটির পর কোন শিক্ষার্থী স্কুলের বাইরে রাস্তায় ও আশে-পাশে জটলা সৃষ্টি ও মারামারি করবে না। স্কুল ছুটি হলে সরাসরি বাসায় চলে যেতে হবে।

১৪. কোন শিক্ষার্থী বার্ষিক মূল্যায়ন পরীক্ষায় একবার অকৃতকার্য হয়ে আবার সেই ক্লাসে পড়তে চাইলে, পরবর্তী বছরের প্রথম কার্যদিবসে শ্রেণী শিক্ষকের নিকট আবেদনপত্র জমা দিতে হবে। পুনঃভর্তি অবশ্যই আসন শূন্য থাকা সাপেক্ষে এবং শিক্ষার্থীর সন্তোষজনক আচরণের উপর নির্ভর করবে।

১৫. অফিসের টেলিফোন অভিভাবক/শিক্ষার্থীর ব্যবহারের জন্য নয়। কোন জরুরী পরিস্থিতির উদ্ভব হলে শ্রেণী শিক্ষক/ কো-অর্ডিনেটর/ উপাধ্যক্ষকে জানিয়ে অফিস ফোন থেকে অভিভাবককে খবর দেয়া হবে।

১৬. ১ম-৮ম শ্রেণী পর্যন্ত প্রতি মেয়াদীতে ৮ দিনের অধিক অনুপস্থিত থাকলে ১ মাসের বেতনের সম-পরিমাণ জরিমানা পরিশোধ করতে হবে।

১৭. ১ম-৮ম শ্রেণী পর্যন্ত প্রতি মেয়াদীতে ৫ দিনের অধিক অনুপস্থিত থাকলে ১ মাসের বেতনের সম-পরিমাণ জরিমানা পরিশোধ করতে হবে।

 

অন্যান্য নির্দেশনাঃ

ক) প্রতিষ্ঠানের অভ্যন্তরে সেল ফোন আনা ও ব্যবহার করা সম্পূর্ণ নিষেধ।

খ) প্রতিষ্ঠানের বিধি-বিধান ও শৃঙ্খলা মেনে চলা এবং শিক্ষার্থীসুলভ আচরণ বাধ্যতামূলক।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ প্রতিষ্ঠানের বিধি-বিধান ও শৃঙ্খলা পরিপন্থী কাজে লিপ্ত প্রমাণিত হলে সিদ্ধান্ত মতে ছাড়পত্র (টি.সি.) হবে।